ঢাকা, রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ চৈত্র ১৪২৯, ১০ জ্বমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

দেশে ভেরিকোস ভেইন চিকিৎসার উদ্বোধন



দেশে ভেরিকোস ভেইন চিকিৎসার উদ্বোধন

কাটা ছেঁড়া ছাড়া রক্তনালীর আঁকাবাঁকা শিরা (ভেরিকোস ভেইন) চিকিৎসায় অত্যাধুনিক আরএফএ ( RFA) মেশিনের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। এতে তিন লাখ টাকার চিকিৎসা মাত্র ৪০ হাজার টাকায় করা যাবে।  বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এ চিকিৎসার উদ্বোধন করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ )। গতকাল বুধবার বেলা ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি -ব্লক ৬ষ্ঠ তলায় ভাসকুলার সার্জারি বিভাগ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, যারা দিন-রাত দাঁড়িয়ে থেকে কাজ করেন, তাদের পায়ের গোড়ালিতে ও রক্তনালীর শিরায় নানা সমস্যা দেখা দেয়। এই লোকগুলোর অধিকাংশেরই বেশি টাকা নেই যে, দুই-তিন লাখ টাকা খরচ করে এর চিকিৎসা করবেন। কোনো রকম কাটা-ছেঁড়া ছাড়াই রক্তনালীর জটিল আঁকাবাঁকা শিরায় উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে আরএফএ মেশিনের মাধ্যমে এ চিকিৎসা করা হবে।

উপাচার্য বলেন, বেসরকারি হাসপাতালে যেখানে এই চিকিৎসায় দুই থেকে তিন লাখ টাকা খরচ হয়, সেখানে আমাদের হাসপাতালে মাত্র ৪০ হাজার টাকা খরচ হবে। এমনকি গরিব-অসহায় রোগী যারা আছে, তাদের মধ্য থেকে ৮০ জনকে আমরা বিনামূল্যে চিকিৎসা দেব। এ মেশিনের মাধ্যমে  চিকিৎসা নিয়ে এক থেকে দুই দিনের মধ্যে রোগী সুস্থ হয়ে বাড়িতে যেতে পারবে।

ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, কার্ডিয়াক সার্জারির জন্য প্রচুর লোক বিদেশে যায়। অথচ আমাদের হাসপাতালে এই সার্জারিগুলো হচ্ছে। রোগীদের এখন আর বিদেশ যাওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। একটা সময় আমাদের ভাস্কুলার সার্জারিতে শুরুতে কোনো কোর্স ছিল না, শিক্ষক ছিল না এমনকি বিভাগে কোনো বেড ছিল না। আস্তে আস্তে একজন-দুইজন করে শিক্ষক হয়েছে, বেডও হয়েছে। একটা পর্যায়ে এসে চলতি ৩০০টি সার্জারি এই বিভাগে হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্ডিয়াক সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ও হল প্রোভোস্ট অধ্যাপক ডা. এসএম মোস্তফা জামান। সভাপতিত্ব করেন, ভাস্কুলার সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. সাইফ উল্লাহ খান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ভাস্কুলার সার্জারি সার্জন ডা. সমরেশ চন্দ্র সাহা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সবুজ, ভাস্কুলার সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. রবিকুল হাসান, সহযোগী অধ্যাপক (সার্জিক্যাল অনকোলজি) ডা. মো. রাসেল, হৃদরোগ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. রসুল আমিন, সহযোগী অধ্যাপক ডা. ফয়সাল ইবনে কবির, বায়োকেমিস্ট্রি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ মাসুম আলম, কনজারভেটিভ ডেনস্ট্রি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. আসাদুজ্জামান সারোয়ারসহ আরো অনেকে।

উল্লেখ্য, ভেরিকোস ভেইন এমন একটি রোগ যাতে হাত ও পায়ের শিরাগুলি গিঁট পাকানোর মত হয়ে ফুলে ওঠে। এই ফুলে ওঠা শিরা ত্বকের ঠিক নীচেই দেখা যায়। এই অবস্থায় শিরাগুলি গাঢ় বেগুনী বা নীলাভ রঙের হয়ে ওঠে। বেশিরভাগ ভেরিকোস ভেইন রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির ক্ষেত্রে সমস্যাটি বাহ্যিক বা দেখতে অস্বাভাবিক লাগাতেই সীমাবদ্ধ থাকে। কিন্তু কারো কারোর ক্ষেত্রে এর অতিরিক্ত কিছু সমস্যা, যেমন চুলকানি, ব্যথা, ফুলে ওঠা, খিঁচুনি, আক্রান্ত অংশের ত্বকের রঙ পরিবর্তন হয়ে যাওয়া, অস্বস্তি ইত্যাদি দেখা দিতে পারে। সুতরাং, এইসব ব্যক্তির ক্ষেত্রে উপযুক্ত চিকিৎসার আশু প্রয়োজন হয়।


   আরও সংবাদ